ডেইলি তালাশ
ডেইলি তালাশ এ আপনাদের স্বাগতম। সময়ের সাথে সবার আগে বস্তুনিষ্ঠ সত্য সংবাদ পেতে আমাদের ওয়েভ-সাইট সাবস্ক্রাইব করে রাখুন।
শিরোনামঃ
পাঁচবিবিতে জীবনের নিরাপত্তার দাবীতে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত মাদারীপুরের রাজৈরে জটিল রোগে আক্রান্তদের মাঝে অনুদানের চেক বিতরণ কালকিনি ইউএনওকে কবিতার সৌজন্য কপি উপহার দিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মালেকুজ্জামান শিবগঞ্জে ১৫টি ইউপিতে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ পাঁচবিবিতে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক পাঁচবিবিতে পাটের বাম্পার ফলন হওয়ার সম্ভাবনা তারাগঞ্জে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ৫৬ লক্ষ টাকা ও ২০৭ মেট্রিক টন গম ও চাল ভাগ-বাটোয়ারা হেনোলাক্স গ্রুপের এমডি ও পরিচালক গ্রেপ্তার বিধবা নয়, তবুও পাচ্ছেন বিধবা ভাতা :>শিবগঞ্জে কার্ড বিতরনে অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ টুঙ্গিপাড়ায় দুঃস্থ ও দরিদ্রদের মাঝে সেনাপ্রধানের ঈদ উপহার বিতরণ

মেয়র প্রার্থীকে অবৈধ ঘোষণা, প্রার্থী- সমর্থন কারির সংবাদ সম্মেলণ

 গোলাপ হোসেন, জয়পুরহাট প্রতিনিধি : ০১ জুলাই/২২ জয়পুরহাটের পাঁচবিবি পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থীদের মনোনয়পত্র যাচাই-বাচাইয়ের সময় স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী সাবেকুন নাহার শিখার প্রার্থীতা অবৈধ ঘোষণা করা হয়। কারন হিসেবে  সমর্থকের আরও পড়ুন

বরগুনা জেলা জাতীয় পার্টির সদর উপজেলা কমিটি ঘোষণা

বরগুনা জেলা সংবাদদাতা >>> বরগুনা জেলা জাতীয় পার্টির প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত। আজ শুক্রবার বিকাল ৪ টায় ফরহাদ ভবনের হলরুমে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।  এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আরও পড়ুন

নির্মাণ কাজ শুরুর ২ বছর পেরিয়ে গেলেও তারাগঞ্জ মডেল মসজিদের নির্মান কাজ শেষ হয়নি! অপেক্ষায় হাজারো মুসল্লি।

তারাগঞ্জ (রংপুর) থেকে >>> রংপরের তারগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভিতরে দৃষ্টিনন্দন মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সংস্কৃতি কেন্দ্রের গত ২ বছর পূর্বে নির্মাণ কাজ শুরু করে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান পারভেজ কন্সট্রাকশন। হাজারও অনিয়মের আরও পড়ুন

টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অফিসার্স এসোসিয়েশনের শ্রদ্ধা

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি >>> গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অফিসার্স এসোসিয়েশনের নব নির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটি।আজ শুক্রবার (১ই জুলাই) দুপুর ২টায় টুঙ্গিপাড়া আরও পড়ুন

বরগুনায় বস্তাবন্দী খোকনের লাশ উদ্ধার

বরগুনা জেলা সংবাদদাতা >>> বরগুনা সদর উপজেলা ১ নং বদরখালী ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা খোকন খানের(৪২) বস্তা বন্দী লাশ উদ্ধার করে স্থানীয়রা । এ বিষয়ে স্থানীয়রা বলেন খোকন দীর্ঘদিন আরও পড়ুন

বরগুনায় ইয়াবা সহ মাদক ব‍্যবসায়ী ছগির গ্রেফতার

বরগুনা জেলা সংবাদদাতা >>>  বরগুনা মাদকদ্রব্য অধিদপ্তর অভিযান চালিয়ে বরগুনা সদর উপজেলার বুড়িরচর এলাকার ছোট লবনগোলা গ্রাম থেকে ৩০০ পিস ইয়াবা ও ২ গ্রাম আইস সহ এক মাদক ব্যবসায়ী কে আরও পড়ুন

কালাইয়ে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে এনজিও’র কর্মকর্তা গ্রেফতার ২

গোলাপ হোসেন, জয়পুরহাট প্রতিনিধি: ৩০ জুন, ২২ইংজয়পুরহাটের কালাই উপজেলায় আমানতের নামে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে সবুজ বাংলা উন্নয়ন কর্ম সংস্থার সভাপতি যোবায়ের হোসেন ও কোষাধ্যক্ষ আব্দুল কাদের নামে দু’জনকে গ্রেফতার আরও পড়ুন

পদ্মা সেতুর সোনালী অধ্যায়ের নব দিগন্তে মাদারীপুর পৌর সভার বাজেট ঘোষণা

মাদারীপুর প্রতিনিধি >>> পদ্মা সেতুর সোনালী অধ্যায়ের নব দিগন্তে মাদারীপুর পৌর সভার মেয়র মো. খালিদ হোসেন ইয়াদ ৩য় মেয়াদে ৯৩ কোটি ৫৮ লক্ষ ৫৪ হাজার ২৪১ টাকার মাদারীপুর পৌরসভার ২০২২-২০২৩ আরও পড়ুন

ঈদকে সামনে রখেে বড়েছেে গরু চুর:ি দুই পকিাপ চার গরুসহ ৫ চোর আটক

মাদারীপুর প্রতনিধিি >>> ইদুল আজাহার ঈদকে সামনে রখেে মাদারীপুর অন্তঃজলো ও বভিন্নি জলোর চোর চক্র গুলি সক্রয়ি হয়ে উঠছে।ে অন্তঃজলো চোর চক্ররে সদস্যর তথ্যরে ভত্তিতিে দলে দলে ভাগ হয়ে দশেরে আরও পড়ুন

সোনামসজিদ স্থলবন্দর সি এন্ড এফ’র মাসিক সভা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি >>> দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্থলবন্দর চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার সোনামসজিদ স্থলবন্দর সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে সিএন্ডএফ’র কার্যালয়ে সিএন্ডএফ’র সভাপতি মোঃ ইসমাইল হোসেনের সভাপতিত্বে উপস্থিত আরও পড়ুন

লাইফস্টাইল

  • নীলফামারীতে টিকটক বানাতে গিয়ে নদীতে ডুবে কিশোরের মৃত্যু

    নীলফামারী প্রতিনিধি >>> নীলফামারীর সৈয়দপুরে টিকটক বানাতে গিয়ে মোস্তাকিম ইসলাম (১৬) নামে এক কিশোরের নদীতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (২০ মে) দুপুরে উপজেলার বোতলাগাড়ি ইউনিয়নের খরখরিয়া নদীতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মোস্তাকিম খদ্দ বোতলাগাড়ি এলাকার মন্টু মিয়ার ছেলে। সে উপজেলার ঢেলাপিরে সাবান তৈরির কারখানায় কাজ করতো বলে জানা গেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, কয়েকজন বন্ধু মিলে টিকটক ভিডিও বানানোর জন্য খড়খড়িয়া নদীর ওপর নির্মিত দিঘলডাঙ্গী ব্রিজ থেকে লাফ দেয় মোস্তাকিম। কিন্তু লাফিয়ে পড়ার পর ভেসে না ওঠায় স্থানীয়রা নদীতে নেমে তাকে খুঁজতে শুরু করে। এক পর্যায়ে নদীতে স্রোত থাকায় প্রায় ১৫০ গজ দূরে তাকে খুঁজে পায় স্থানীয়রা। ইতোমধ্যে সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস থেকে উদ্ধারকর্মীরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। তারা মোস্তাকিমকে উদ্ধার করে সৈয়দপুর ১০০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিভেন্সের স্টেশন অফিসার খুরশিদ আলম বলেন, খবর পাওয়ার পর আমরা ঘটনাস্থলে যাই। স্থানীয়রা উদ্ধার করলেও তাকে বাঁচানো যায়নি। নদীতে পানি কম থাকায় লাফ দেওয়ার পর আঘাত পেয়ে আহত হওয়ার ফলে এমন ঘটনা ঘটতে পারে বলে জানান তিনি।  

    বিস্তারিত...
  • বৈশাখ সংক্রান্তি উপলক্ষে গোপালগঞ্জে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী চড়ক পূঁজা ও মেলা অনুষ্ঠিত

    গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি >>>পঞ্জকিা মতে বৃহস্পতবিার সন্ধ্যায় প্রতি বছররে বশৈাখ সংক্রান্তরি উপলক্ষ্যে সদর উপজলোর সাতপাড় পশ্চমিপাড়া গ্রামরে কালা বশ্বিাসরে বাড়ি আয়োজন করা হয় নীল পূজা।পূজা শষেে লোহা দয়িে তরৈী দুটি করে বড়শি ফোরানো হয় দুই যুবকরে পঠি।ে পরে মন্দরিরে পাশরে একটি মাঠে গাছ দয়িে বানানো চৌকাঠরে দুই মাথায় রশি দয়িে বঁেধে ঝুলয়িে দওেয়া হয় ওই দুই যুবক ক।ে পরে অপর প্রান্তরে রশি দয়িে বঁেধে ঘুরানো হয় কয়কে দফা। গোধূলী র্পযন্ত চলে এ চড়ক ঘুড়ানো।এ চড়ক ঘুল্লী ও মলো দখেতে গোপালগঞ্জ জলোর বভিন্নি এলাকার শশিু-নারীসহ হাজার হাজার মানুষ ভীড় জমান। এ চড়ক ঘুল্লীকে কন্দ্রে করে বসে গ্রামীন মলো। খাবার, গহনা, মষ্টিরি দোকান ও মাটরি খলেনা সহ বসে বভিন্নি দোকান।মেলায় ঘুরতে আশা শান্তুনু রায় বলেন, আমি প্রতি বছর আমাদের হিন্দু ধর্ম র্ধমাবলম্বীদরে নীল পূজা ও চড়ক ঘুল্লী দেখতে আসি। প্রতি বছর সাতপাড় পশ্চিমপাড়া গ্রামে কালা বিশ্বাসের বাড়িতে নীল পূজা হয় ও পূজা শেষে চড়ক ঘুল্লি হয়। এ চড়ক ঘুল্লি উপলক্ষে এখানে গ্রামীন মেলাও বসে।সাতপাড় ইউনিয় পরিষদের চেয়ারম্যান প্রনব বিশ্বাস বাপ্পি বলেন, করোনার কারনে দুই বছর কোন ধরনের ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান বন্ধ ছিল। এবছর সকল ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ধর্মালম্বীদের ভির চোখে পড়ার মত। সাতপাড় পশ্চিমপাড়া কালা বিশ্বাস প্রতি বছর বশৈাখ সংক্রান্তরি উপলক্ষে নীল পূজা ও চড়ক ঘুল্লি অনুষ্ঠান করে আসছে। এবছর আমাদের সাতপাড় ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে পূজাকে সাফল্য করতে সর্বদা কাজ ####

    বিস্তারিত...
  • রিমুভার শেষ হয়ে গেছে? নেল পলিশ তুলতে জেনে নিন অন্য উপায়

    29 -3 -2022>> অনেকেই পোশাকের সঙ্গে মানানসই রঙের নেলপলিশ পরতে ভালবাসেন। তবে নেল পলিশের রং তুলতে গিয়ে যদি দেখেন, রিমুভার ফুরিয়ে গেছে, তা হলেও কোনো চিন্তা নেই। ঘরোয়া কয়েকটি উপায়ে এই সমস্যার চটজলদি সমাধান পাওয়া যেতে পারে। ১) টুথপেস্ট: টুথপেস্ট দিয়েও নেলপলিশ তোলা সম্ভব। নখের উপর টুথপেস্ট লাগিয়ে কিছুক্ষণ রাখুন। টুথপেস্ট শুকিয়ে যাওয়ার আগেই তুলাা দিয়ে ঘষে ফেলুন। উঠে যাবে নেল পলিশ। ২) লেবু আর ভিনেগার: রান্নাঘরে সহজলভ্য এই দুটি উপাদান দিয়েই নেল পলিশ তুলে ফেলে পারেন। একটি পাত্রে লেবুর রস আর ভিনেগার মিশিয়ে তাতে আঙুল ডুবিয়ে কিছু ক্ষণ রেখে তুলো দিয়ে ঘষলে উঠে যাবে নেল পলিশ। ৩) হেয়ার স্প্রে: হেয়ার স্প্রে দিয়ে তুলা ভিজিয়ে নিন। সেই তুলো নখের উপর ঘষলেই উঠে আসবে নেল পলিশ। ৪) স্যানিটাইজার: করোনার কারণে স্যানিটাইজার এখন আমাদের নিত্যসঙ্গী। তবে শুধু জীবাণু দূর করতে নয়, নেলপলিশ তুলতেও ব্যবহার করা যেতে পারে এটি। তুলায় কয়েক ফোঁটা স্যানিটাইজার ঢেলে নখের উপর ঘষলে মুহূর্তে উঠে যাবে নেলপলিশ। ৫) বডি স্প্রে: নেল পলিশ তুলতে ডিওড্র্যান্ট বা বডি স্প্রেও দারুণ কাজ করে। নখের উপর ডিওড্র্যান্ট স্প্রে করে তুলো দিয়ে মুছলেই নেলপলিশের রং উঠে যাবে।

    বিস্তারিত...
  • একজন জয়িতা নারী রোজিনার গল্প

    ।কাওছার হামিদ কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি : কথায় আছে যে রাধে সে চুলও বাধে। অভাবের সংসারের ছেলের স্কুলের খরচ ,ইনজিওর সাপ্তাহিক কিস্তি খরচ। এর পরও প্রতিবেশী আপদে বিপদে পাশে দাঁড়ানো সবকিছু সামলে এবার নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার নিতাই ইউনিয়ন পরিষদের ১,২,ও ৪ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মহিলা সংরক্ষিত সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন রোজিনা বেগম। নিতাই ইউনিয়নের মুশরুত পানিয়ালপুকুর গ্রামের তরিকুল ইসলামের স্ত্রী রোজিনা বেগম। ২০০৫ সালে প্রেমের সম্পর্কের মাধ্যমে বিয়ে করেন একই গ্রামের বেকার তরিকুলকে। বিয়ের পর চরম অভাবে অনাটনের মধ্যে দিন কাটছিল ওই দম্পতির ।স্বামী তরিকুল ইসলাম রুটির তন্দুরে শ্রমিক হিসাবে কাজ শুরু করেন। স্বামীর রোজগারেও অভাব যেন কিছুতেই পিছু ছাড়তো না।রোজিনা তখন বাধ্য হয়ে ওয়াল্ডভিশনের লাভলী হুড প্রগ্রাম সদস্য হন।সেখান থেকে তিনি একটি বকনা গরু নিয়ে পালন করেন। ওই গরু থেকে তার তিনটি গরু হয় । এছাড়াও তিনি এসডি এফ এর ক্যাশিয়ার নির্বাচিত হন।তখন একটু একটু করে স্বচ্ছলতা ফিরতে শুরু করে সংসারে। এক সময় তিনি স্বামীকে রুটির তন্দুর থেকে নিয়ে এসে একটি ইজিবাইক কিনে দেন।স্বামীও প্রতিদিন ৫০০ থেকে ৭০০ টাকা রোজগার করতে থাকেন।এব্যাপারে কথা হলে রোজিনা বেগম জানায় ,বিয়ের পর পারিবারিক অসন্তোষ লেগেই ছিল।ওই সময় আবার প্রথম সন্তানের জম্ম। অভাবের তারনায় দিশেহারা হয়ে পরেছিলাম ।না পারছিলাম বাবার সংসারে ফিরতে , না পারছিলাম স্বামীকে ছাড়তে। তার মানে এমনটি অবস্থা ছিল শ্যাম রাখি না কুল রাখি । আমার সাংসারিক অবস্থায়ই যখন ভাল নয় প্রতিবেশীদের নানা সমস্যা আমার বিবেককে নাড়া দেয়। একজন মানুষের সমস্যায় আর একজন মানুষ পাশে দাড়ানোকে দায়িত্বঞ্জান মনে করে তাদের সমস্যা লাঘবে চেস্টা করি। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে সফল ও হয়েছি । এভাবে আমার কাজ কর্মের কথা এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে ছড়িয়ে পড়ে। ফলে ২০২১ সালে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর থেকে আমাকে জয়িতা নির্বাচিত করা হয়। জয়িতা নির্বাচিত হওয়ার পর ওই গ্রামবাসীরাই আমাকে গত নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা সদস্যা পদে দাড়ানোর উৎসাহ তৈরী করে দিয়ে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করেন।

    বিস্তারিত...
  • শীতে সানস্ক্রিন কেন ব্যবহার করবেন

    গরমকালে সানস্ক্রিন যতটা গুরুত্ব পায়, ঠিক ততটাই উপেক্ষিত হয় শীতকালে। অনেকেরই ধারণা, শীতের দিনে সানস্ক্রিন ক্রিম/লোশন লাগানোর প্রয়োজন নেই। কেননা এ সময় সূর্যের তাপ কম থাকে। ত্বক বিশেষজ্ঞদের মতে, ত্বক সুস্থ, সজীব রাখতে ও স্কিন ক্যানসারের ঝুঁকি এড়াতে গ্রীষ্মের মতো শীতেও সানস্ক্রিন জরুরি। চলুন জেনে নেওয়া যাক, কেন শীতেও সানস্ক্রিনের ব্যবহার প্রয়োজন। পাতলা ওজন স্তর ত্বক ধ্বংসাত্মক সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি সারা বছর ধরেই বিকিরিত হয়, এমনকি মেঘাচ্ছন্ন দিনেও। শীতকালীন মেঘ যতই ঘন দেখাক না কেন, তাদেরকে ভেদ করে প্রায় ৮০ শতাংশ পর্যন্ত সূর্যের রশ্মি নিচে আসতে পারে। শীতকালে বায়ুর ওজন স্তরের ঘনত্ব সবচেয়ে কম থাকে। এই ওজন স্তরই সূর্যের ক্ষতিকর অতিবেগুনি রশ্মিকে শোষণ করে। ফলে এই স্তরের ঘনত্ব কম থাকলে অতিবেগুনি রশ্মির প্রভাব যায় বেড়ে। যার মানে হলো, আপনার ত্বক এ ক্ষতিকর রশ্মির সংস্পর্শে আসছে। অতিবেগুনি রশ্মির ক্ষতিকর প্রভাব থেকে বাঁচতে সানস্ক্রিন ক্রিম/লোশন অত্যন্ত জরুরি। বয়সের ছাপ প্রতিরোধ শীতকালে বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ থাকে কম। যার ফলে ত্বক অত্যন্ত শুষ্ক হয়ে যায়। শুষ্ক ত্বকে বাড়ে বলিরেখা। তাই শীতকালে সানস্ক্রিন ব্যবহার জরুরি। একাধিক গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে, নিয়মিত সানস্ক্রিন ব্যবহার করে বয়সের ছাপ এড়ানো যায়। ক্যানসার প্রতিরোধ সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মির প্রভাবে ত্বকের কোষের ডিএনএ ক্ষতিগ্রস্ত হয়, ডিএনএ বারবার ক্ষতিগ্রস্ত হলে স্কিন ক্যানসার সৃষ্টির ঝুঁকি থাকে। সানস্ক্রিন ব্যবহারে অনেকটাই হ্রাস পায় এই সম্ভাবনা। ৯০ শতাংশ নন-মেলানোমা স্কিন ক্যানসারের সঙ্গে সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মির যোগসূত্র আবিষ্কার করেছেন গবেষকরা। শীতে সানস্ক্রিন দ্রুত মুছে যায় গরমের দিনে শরীর থেকে ঘাম বের হয়ে সানস্ক্রিন দূর হয়ে যায়। ফলে অনেকে পুনরায় সানস্ক্রিন ব্যবহারে তৎপর হয়ে থাকেন। কিন্তু শীতকালে অনেকে অনুধাবন করেন না যে, শীতের কড়া বাতাসে সানস্ক্রিন আরো দ্রুত নিঃশেষ হয়ে যায়। তাই শীতে শুধু সকালে সানস্ক্রিন ব্যবহার করে সারাদিন নিশ্চিন্তে থাকা যাবে না। ত্বক বিশেষজ্ঞরা এ মৌসুমে ২ ঘণ্টা পরপর ত্বকে সানস্ক্রিন ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন। কত এসপিএফ-যুক্ত সানস্ক্রিন ব্যবহার করা ভালো? এসপিএফ ১৫-এর বেশি যেকোনো সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে পারেন। যদি অনেক বেশি সময় রোদে থাকার ব্যাপার থাকে, তাহলে ৩০ থেকে ৫০ এসপিএফ যুক্ত সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। রোদের সংস্পর্শে আসতে পারে এমন অঙ্গ- যেমন মুখ, গলা, হাতের অনাবৃত অংশে সানস্ক্রিন লাগান। সানস্ক্রিন লাগানোর আগে অল্প করে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। এতে ত্বকে আদ্রতা বজায় থাকবে। ত্বকের ধরন অনুযায়ী সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন।###

    বিস্তারিত...

শিল্প-সাহিত্য

  • কালকিনি ইউএনওকে কবিতার সৌজন্য কপি উপহার দিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মালেকুজ্জামান

    মাদারীপুর প্রতিনিধি >>> মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার পিংকি সাহাকে স্বরচিত কবিতার সৌজন্য কপি উপহার দিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মালেকুজ্জামান মালেক। বিশিষ্ট কবি ও সাহিত্যিক বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মালেকুজ্জামান মালেকের স্বরচিত ‘আমাদের স্বাধীনতা, আল্লাহর দ্বীদার লাভে কোরবানী, জন্ম যার – মৃত্যু ও তার, এবং স্বপ্নের পদ্মাসেতুসহ মোট চারটি কবিতার সৌজন্য কপি আজ বুধবার সকালে ইউএনওর নিজস্ব কার্যালয়ে বসে তার হাতে তুলে দেয়া হয়। বিশিষ্ট কবি ও সাহিত্যিক বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মালেকুজ্জামান মালেক বলেন, আমি কবিতা লিখে আনন্দ পাই। তাই আমি কবিতা লিখি। আর কবিতার মাধ্যমে এই দেশের অনেক কিছু তুলে ধরে আমার মনে শান্তি পাই।###

  • বরগুনায় এসএসকে পরামর্শমুলক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

    তালুকদার মোঃ মাস্উদ, বরগুনা জেলা সংবাদদাতা >>> বরগুনায় স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মসূচি  ( এস এস কে) সম্প্রসারন ও বাস্তবায়নের লক্ষে সংশ্লিষ্ট  অংশিজনদের সাথে  মতবিনিময় ও পরামর্শমুলক কর্মশালা  অনুষ্ঠিত হয়েছে ।  সোমবার সকাল ১১ টায় জেলা শিল্প কলা একাডেমিতে এ মতবিনিময় ও পরামর্শমুলক কর্মশালা অনুষ্টিত  হয়।  এ সময় প্রধান অতিথি  হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য  সেবা  বিভাগের  যুগ্ন সচিব   ড. নুরুল আমিন সাবেক সচিব ড,মোঃ শাহাদাত হোসেন। বরগুনা সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মোঃ নিজাম উদ্দিন  এর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান  ইমরান হোসেন রাসেল ফরাজি, বরগুনা পৌর সভার  প্যানেল মেয়র রইসুল আলম রিপন,ঢলুয়া ইউপি চেয়ারম্যান  আলহাজ্ব  আজিজুল  হক স্বপন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। এ সময় বক্তরা বলেন গরীব অসহায় দরিদ্র মানুষের চিকিৎসা  সেবা নিশ্চিত  করতে এসএসকে প্রকল্প চালুকরা হয়েছে। যাচাই করে কার্ড বিতরন করা হবে।  কর্মশালায়  সরকারী কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক সহ সুশিল ব্যক্তিরা অংশ নেয়। ###

  • নারী শিক্ষায় অগ্রগামী>কালাই সরকারী মহিলা কলেজ

    ইদ্রিস আলী, কালাই জয়পুরহাট থেকে ফিওে >>> জয়পুরহাট জেলায় নারী শিক্ষায় অগ্রগামী ও অনবদ্য স্বাক্ষর রেখে চমোঃলেছে সদ্য সরকারী হওয়া কালাই মহিলা সরকারী কলেজ। ১৯৯৫ সালে ৫একর জমির উপর স্থাপিত এ কলেজটি এখন বলা চলে শিক্ষাসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে একটি অলোকবর্তিতা। অধ্যক্ষ নাজিম উদ্দিনের অক্লান্ত শ্রম ও শিক্ষক কর্মচারীদের নিরসল উপজেলা পর্যায়ে কলেজটি ধীরে ধীরে আলো ছড়িয়ে প্রথম সারির শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রুপ নিতে চলেছে।বর্তমানে কলেজটিতে উচ্চ মাধ্যমিক, ডিগ্রী কোর্স ছাড়াও দুটি বিষয়ে ¯œাতক(সম্মান) শ্রেণিতে প্রায় ১ হাজার ৮শ ছাত্রী পাঠদান কার্যক্রম চালু রয়েছে। রয়েছে মান সম্মত বিজ্ঞানাগার ও লাইব্রেরী । কলেজ ক্যাপা ৩য় তলায় ছাত্রীদের জন্য রয়েছে ১শ সিটের মনোরম পরিবেশের ছাত্রী নিবাস। যেখানের কালাই উপজেলার সহ আসে পাশে উপজেলার ছাত্রীরা অবস্থান করে শিক্ষা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করে। কলেজেটিতে রয়েছে আলাদা আলাদা বিভাগের শিক্ষকদের জন্য আলাদা আলাদা শিক্ষক রুম। শিক্ষার্থী ও শিক্ষকগণকে কম্পিউটারে অধিকতর দক্ষ করার জন্য রয়েছে সু-সজ্জিত শেখ রাসেল ডিজিট্যাল কম্পিউটার ল্যাব। শিক্ষকদের সুবিধার জন্য প্রতিটি কক্ষে রয়েছে সাউন্ড সিস্টেম ও ওয়াই ফাই কানেকশন এবং বিদ্যূতের বিকল্প হিসাবে প্রতিটি কক্ষে রয়েছে সোলার প্যানেল। শুধু তাই নয় কলেজটি প্রতিষ্টার পর থেকে অধ্যবদি যে সকল ছাত্রী পাশ করে বের হয়েছেন এবং যারা বিভিন্ন বিশ্ব বিদ্যালয়সহ সরকারে বিভিন্ন দপ্তরের উচ্চ পদে কর্মরত আছে তাদের তথ্য সংরক্ষিত আছে। কলেজে শিক্ষক কর্মচারী ও ছাত্রীদের জন্য রয়েছে কঠোর শৃংখোলা। কলেজ চলাকালীন সময়ে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া কোন শিক্ষক বা ছাত্রীর ক্যাম্পাস ত্যাগ করার রয়েছে বাধ্যবাধকতা। কলেজটিতে গত ২০২১ সালে মাধ্যমিক পরীক্ষায় ৪০৩ জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করে । এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯৮জন ছাত্রী।শিক্ষা কার্যক্রম ছাড়াও রোভার স্কাউট, ফুটবল দল ও সাংস্কৃতিক বিষয়ে বেশ পারদর্শিতা রয়েছে একলেজের শিক্ষার্থীদের। প্রায় প্রতিটি জাতীয় রোভার মুডে একলেজের রোভাররা অংশগ্রহণ করে ইতিমধ্যে সুনাম বয়ে এনেছেন। পাশাপাশি ফুটবল ও সাংস্কৃতিতেও অনন্য সাফল্য অর্জন করেছে।সম্প্রতি জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২২ এ প্রতিষ্ঠানের ছাত্রীরা উপজেলা পর্যায়ে ১০টি, জেলা পর্যায়ে ৩টি, বিভাগীয় পর্যায়ে ১টি ও জাতীয় পর্যায়ে ১টি ইভেন্টে পুরুস্কার প্রাপ্ত হয়েছে। অধ্যক্ষ নাজিম উদ্দিনের নিরলস প্রচেষ্ঠায়র স্বীকৃতি স্বরপ তিনি জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে-২২ জেলার শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ হিসাবে মনোনীত হয়েছেন। এছাড়াও অত্র প্রতিষ্ঠানের জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শ্রেণি শিক্ষক হিসাবে আব্দুল মান্নানকে ভ‚ষিত করা হয়। অধ্যক্ষ নাজিম উদ্দিন কলেজে এ সাফল্যের জন্য জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ ও জয়পুরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপনসহ জেলা উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় অভিভাবক ও সচেতন মহলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।###

  • স্কাউটস ন্যাশনাল সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড পেলেন ভোলাহাটের আলিউল

    চাঁপাইনবাবগঞ্জপ্রতিনিধি : – চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটের কানারহাট গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে মোঃ আলিউল ইসলাম পরাগ রোভার স্কাউট গ্রæপের সাবেক রোভার মেট বাংলাদেশ স্কাউটস এর ন্যাশনাল সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড পেলেন।২৭ জুন সোমবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ স্কাউটস এর ৫০ তম সূবর্ন জয়ন্তী বার্ষিক সাধারণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে রাষ্ট্রপতি ও চীফ স্কাউট মোঃ আবদুল হামিদ বাংলাদেশ স্কাউটস এর সর্বোচ্চ পুরুষ্কার রাষ্ট্রপতি স্কাউট অ্যাওয়ার্ড ও রাষ্ট্রপতি রোভার স্কাউট অ্যাওয়ার্ড প্রদানের পাশাপাশি স্কাউট এর অন্য অ্যাওয়ার্ড এর তালিকা প্রকাশ করেন। ন্যাশনাল সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড এর তালিকায় স্থান করে নিয়েছে ভোলাহাটের মোঃ আলিউল ইসলাম।স্কাউট আন্দোলনের মাধ্যমে মানব কল্যাণে আত্মনিবেদন করে বন্যা, জলোচ্ছ¡াস, ঝড়বাদল, আপদকালীন উদ্ধার, ত্রান সামগ্রী সংগ্রহ ও বিতরণ ইত্যাদি কাজে আতœনিবেদন করায় সাহসী ও গৌরবময় সেবার স্বীকৃতিস্বরুপ প্রদান করা হয়ে থাকে এই অ্যাওয়ার্ড।###

  • পাঁচবিবির বাগজানা বুদ্ধি প্রতিবন্দী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়ের>প্রতিবন্ধী শিশুদের মাঝে থেরাপি প্রদান

    পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) সংবাদদাতা >>> সুইট বাংলাদেশ অনুমোদিত জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার বাগজানা বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়ের আয়োজনে মঙ্গলবার (২১ শে জুন) সকালেবাগজানা আছিরিয়া দাখিল মাদ্রাসা চত্বরে প্রতিবন্ধী সহ ১২০ জন বিভিন্ন রোগীদের চিকিৎসা ও ফিজিও থেরাপি দেওয়া হয়। প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্রজয়পুরহাট, জাতীয় প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশন সমাজ কল্যান মন্ত্রালয়ের ভ্রাম্যমান চিকিৎসা কেন্দ্রের উদ্যোগে এই ফিজিও থেরাপি প্রদান করা হয়। চিকিৎসা স্থলে উপস্থিত ছিলেন বাগজানা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান,নাজমুল হক, বাগজানাবুদ্ধি প্রতিবন্ধী স্কুলের সভাপতি বাবু দুলাল অধিকারী ও স্কুলের নির্বাহী সচিব দীপঙ্কর অধিকারী (রিপন) রোগীদের চিকিৎসা প্রদান করেন চিকিৎসক মোস্তাফিজুর রহমান (ফিজিও থেরাপি বিশেষজ্ঞ) সহ আরো অনেকে।###

ক্যাম্পাস

  • জাতির পিতার সমাধিতে ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই ও ২ শতাধিক মেয়ে শিক্ষার্থীদের শ্রদ্ধা নিবেদন

    গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি >>> জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধ টুঙ্গিপাড়ায় শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন।আজ শনিবার দুপুরে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আনোয়ারুল আলম চৌধূরী পারভেজ এর নেতৃত্বে ৪১ সদস্য বিশিষ্ট্য একটি দল পুষ্পস্তবক অর্পনের মধ্য দিয়ে জাতির পিতার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।এ সময় সংগঠনের সাধারন সম্পাদক মোল্লা মো. আবু কাওসার, সাংগঠনিক সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু, সদস্য নাদিরা কিরন সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে নেতৃবৃন্দ ফাতেহা পাঠ সহ দোয়া ও মোনাজাত করে জাতির পিতার রুহের মাগফিরাত কামনা করেন। এর পর ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ২৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও ফরিদ উদ্দিন সিদ্দিকি উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি হাবিবুর রহমান মানিক ওই বিদ্যালয়ের এবং স্যার সলিমুল্যা মুসলিম এতিমখানার ২ শতাধিক মেয়ে শিক্ষার্থীদের পদ্মা সেতু পরিদর্শণ শেষে জাতির পিতার সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।###

  • কেন ঢাবি করোনার টিকা আবিষ্কার করতে পারেনি, জানালেন উপাচার্য

    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) >>> কেন করোনাভাইরাসের টিকা আবিষ্কার করতে পারেনি—এ প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্থিক সক্ষমতার প্রতি ইঙ্গিত দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘কত মিলিয়ন ডলার, কত মিলিয়ন পাউন্ড অনুদান ও বিনিয়োগ থাকলে এ ধরনের একটি কাজ (টিকা উদ্ভাবন) সম্পাদিত হয়, সেটি বোধ করি আপনারা সবাই বোঝেন।’ গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) মিলনায়তনে ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের বার্ষিক সাধারণ সভায় (২০১৯-২২) অংশ নিয়ে উপাচার্য ও অ্যালামনাইয়ের প্রধান পৃষ্ঠপোষক মো. আখতারুজ্জামান এসব কথা বলেন। এ সভায় বাংলাদেশ চেম্বার অব ইন্ডাস্ট্রিজের (বিসিআই) সভাপতি আনোয়ারুল আলম চৌধুরী পারভেজকে সভাপতি এবং আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতি মোল্লা মোহাম্মদ আবু কাওছারকে মহাসচিব করে অ্যালামনাইয়ের ৪১ সদস্যের নতুন কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়। সভায় উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘আপনারা (অ্যালামনাই) অনেকেই বলেন, করোনাকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় একটি ভ্যাকসিন (টিকা) আবিষ্কার করতে পারত, কিট উদ্ভাবন করতে পারত। এ ধরনের নানা কথা খুব প্রসঙ্গক্রমেই আসে। প্রতিটি অ্যালামনাই খুব শক্তিশালীভাবে বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন করোনার টিকা আবিষ্কার করতে পারল না? এই প্রত্যাশা ও সুন্দর দৃষ্টিভঙ্গির জন্য আপনাদের ধন্যবাদ দিই। আপনাদের এই হাই এস্টিমেশন (উচ্চাশা) একটি প্রশংসনীয় বিষয়। আপনারা চাইছেন যে বিশ্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় একেবারেই এক নম্বর বিশ্ববিদ্যালয় হবে। আপনাদের এ প্রত্যাশা অসাধারণ।’ অ্যালামনাইদের উদ্দেশে উপাচার্য আরও বলেন, ‘একটি বিষয় একটু মনে রাখবেন, বিশ্বে কয়েক হাজার বিশ্ববিদ্যালয় আছে। কিন্তু একটি টিকার নামই ঘুরেফিরে আসছে। সেটি হলো অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা। অক্সফোর্ড ছাড়াও তো হাজার হাজার বিশ্ববিদ্যালয় আছে। অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার নাম শুনেই বোঝা যাচ্ছে, ইন্ডাস্ট্রি (শিল্প)-একাডেমিয়া (বিশ্ববিদ্যালয়) অ্যালায়েন্স কত শক্তিশালী! কত মিলিয়ন ডলার, কত মিলিয়ন পাউন্ড অনুদান ও বিনিয়োগ থাকলে এ ধরনের একটি কাজ সম্পাদিত হয়! সেটি বোধ করি আপনারা সবাই বোঝেন। আপনাদের প্রত্যাশার সফলতা কামনা করি।’ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের যে সম্মান ও মর্যাদা, তার পেছনে অ্যালামনাইদের অসাধারণ ও অনন্য অবদান রয়েছে বলে জানান উপাচার্য আখতারুজ্জামান। তিনি বলেন, ‘জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে আপনারা যে যেখানে কাজ করছেন, তাঁদের নৈতিক একাগ্রতা ও ব্যবসায় নৈতিকতা খুবই উঁচু। অ্যালামনাইদের সুনাম একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য র‍্যাঙ্কিং, সম্মান ও মর্যাদায় শক্তিশালী মানদণ্ড হিসেবে ভূমিকা রাখে। এই মানদণ্ডে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যালামনাইরা এ বিশ্ববিদ্যালয়কে অনেক কিছু দিয়েছেন।’ সভায় সভাপতিত্ব করেন ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সদ্য বিদায়ী সভাপতি এ কে আজাদ। তিনি বলেন, ‘অ্যালামনাইয়ের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার পর এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্যাগুলো আমি বোঝার সুযোগ পেয়েছি। শিক্ষার্থীরা যে এত কষ্টের মধ্যে আছে, অ্যালামনাইয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত না হলে আমি বুঝতে পারতাম না। অ্যালামনাইদের প্রতি আমার অনুরোধ, অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের পাশাপাশি প্রতিটি বিভাগের অ্যালামনাইকে আপনারা শক্তিশালী করুন। পয়সার অভাবে কোনো শিক্ষার্থীর লেখাপড়া যেন বন্ধ না হয়, সেই দায়িত্ব আপনারা নিন। সবাই মিলে বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। উপাচার্য মহোদয়ের কাছে আমার অনুরোধ, বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামো উন্নয়নে আমরা অবদান রাখতে চাই। সিনেট-সিন্ডিকেটের মাধ্যমে একটা নীতিমালা করে আমাদের অবদান রাখার সুযোগ করে দিন।’ সভায় অ্যালামনাইয়ের পক্ষ থেকে সংগঠনের প্রয়াত সদস্যদের স্মরণে শোকপ্রস্তাব উত্থাপন করেন সুভাষ সিংহ রায়। স্বাগত বক্তব্য দেন মোল্লা মোহাম্মদ আবু কাওছার। এ কে এম আফজালুর রহমান ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের ২৭ এপ্রিল অনুষ্ঠিত অ্যাসোসিয়েশনের বার্ষিক সাধারণ সভার কার্যবিবরণী তুলে ধরেন। গতকালের বার্ষিক সাধারণ সভার কার্যবিবরণী উপস্থাপন করেন সংগঠনের সদ্য বিদায়ী মহাসচিব রঞ্জন কর্মকার। ২০১৯-২২ আয়-ব্যয়ের নিরীক্ষা প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন সদ্য বিদায়ী কোষাধ্যক্ষ দেওয়ান রাশিদুল হাসান। আরও বক্তব্য দেন শাইখ সিরাজ।###

  • পাবিপ্রবির ১৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ৫ জুন

     পাবনা প্রতিনিধি >>>আগামীকাল ৫ জুন পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। দিনটি উৎসবমুখর পরিবেশে উদযাপনে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ ও প্রকাশনা দপ্তরের উপ-পরিচালক ফারুক হোসেন চৌধুরী জানান, এদিন সকাল নয়টায় আনন্দ শোভাযাত্রার মাধ্যমে শুরু হবে অনুষ্ঠান। দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, কবি বন্দে আলী মিয়া মুক্তমঞ্চ উদ্বোধন, বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি, শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ, আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, পুরস্কার বিতরণী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। থাকবে জনপ্রিয় ব্যান্ড দল ‘জলের গান’র পরিবেশনা। বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. হাসিনা খান। সভাপতিত্ব করবেন পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন।  #### 

  • তারুণ্যকে কাজে লাগাতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী

    শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ‘দেশের উন্নয়নের জন্য তারুণ্যকে কাজে লাগাতে হবে। আর এই তারুণ্যকে যুগোপযোগী করে গড়ে তুলতে হবে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে। বৃহস্পতিবার (২ জুন) রাজশাহীর বেসরকারি বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।মন্ত্রী বলেন, ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের দিকে এখন নজর রাখতে হবে। এ জন্য আমাদের তারুণ্যকে কাজে লাগাতে হবে। ভবিষ্যতের জন্য তাদের তৈরি করতে হবে। এক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকেই বেশি ভূমিকা রাখতে হবে।’ দীপু মনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে শুধু ভাবলে হবে না, যে শিক্ষার্থী ভর্তি নেব, শিক্ষা দেব, সার্টিফিকেট দেব আর ছেড়ে দেব। শিক্ষার্থীকে তার কর্মজীবনের জন্য প্রস্তুত করে দিতে হবে। তার ইন্টার্নশিপের ব্যবস্থা করতে হবে। তাহলে শিক্ষার্থীকে পেছনে ফিরে তাকাতে হবে না।’ তিনি বলেন, ‘দ্রুত পরিবর্তনশীল বিশ্বের সঙ্গে নিজেকে উপযুক্ত করে তুলতে হলে শেখাতে হবে কি করে, তা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে জানতে হবে এবং সেভাবে কাজ করতে হবে। গ্র্যাজুয়েটদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা লক্ষ্য স্থির করুন। আপনারা আপনাদের মেধা, যোগ্যতা, দক্ষতা ও শ্রম দিয়ে লেগে থাকবেন। লেগে থাকলে সাফল্য আসবেই। খেয়াল রাখবেন সেই সাফল্য যেন অসততায় কলুষিত না হয়। আপনাদের পেছনে পরিবারের এবং শিক্ষকদের অনেক শ্রম-কষ্ট জড়িত। আপনারা সবার প্রতি আপনাদের দায়িত্ব পালনে সচেষ্ট থাকবেন।’ রাজশাহী নগরীর খড়খড়ি এলাকায় নির্মাণাধীন স্থায়ী ক্যাম্পাসে এই সমাবর্তন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে নয়টি বিভাগের সাড়ে তিন হাজারের বেশি গ্র্যাজুয়েট অংশ নেন। রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য মো. আবদুল হামিদের পক্ষে এতে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষামন্ত্রী। সমাবর্তন অনুষ্ঠানে তিনি অনন্য কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীকে ‘চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল’ এবং নয় শিক্ষার্থীকে ‘ভাইস চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল’ দেন।###

  • ঢাবির ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা কাল, প্রতি আসনে লড়বেন ৩৩ জন

    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আগামীকাল শুক্রবার। ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিট দিয়ে আগামীকাল বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা ও ঢাকার বাইরে সাতটি বিভাগীয় শহরে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সারাদেশে মোট ৩০ হাজার ৬৯৩ জন শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নেবেন। গত শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘গ’ ইউনিটে আসন সংখ্যা ছিল ১২৫০টি। এবার তা ৩২০টি কমিয়ে ৯৩০টি করা হয়েছে। সে অনুযায়ী প্রতিটি আসনের বিপরীতে ৩৩ জন শিক্ষার্থী ভর্তি যুদ্ধে অংশ নিবেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান আগামীকাল বেলা ১১টা ১৫ মিনিটে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ ভবনে পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করবেন। এ বিষয়ে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মুহাম্মাদ আব্দুল মঈন জাগো নিউজকে বলেন, আমাদের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন। সব বিভাগীয় শহরে আমাদের প্রতিনিধিরা এরই মধ্যে চলে গেছেন। আগামীকাল সফলভাবেই আমাদের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হবে, ইনশাল্লাহ।###

বিজ্ঞাপনঃ

রাজনীতি

অপরাধ ও দুর্নীতি

© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed By Mak Institute of Design |